নাটোর জেলা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানুন

আসসালামু আলাইকুম, নাটোর জেলা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানুন ও নাটোর জেলার বিখ্যাত খাবার সম্পর্কে জানতে হলে আমাদের আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়ুন।
নাটোর জেলা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানুন
আজকের আর্টিকেলটি আমরা সাজিয়েছি নাটোর জেলার সকল তথ্য নিয়ে। তাই নাটোর জেলার সব তথ্য জানার জন্য আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়ুন। নাটোর জেলা সম্পর্কে আপনি যে তথ্য জানতে চান তার সবকিছুই পাবেন আমাদের এই আর্টিকেলে।

ভূমিকা

আজকের আর্টিকেল আমরা আপনাদের জানানোর চেষ্টা করেছি নাটোর জেলার ইতিহাস সম্পর্কে, নাটোর জেলার অবস্থান ও নাটোর জেলার আয়তন কত, নাটোর জেলায় কয়টি উপজেলা, কয়টি পৌরসভা ও কয়টি ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে সে সকল তথ্য।

তার পাশাপাশি নাটোর জেলায় কয়টি সংসদীয় আসন রয়েছে ও কয়টি রেলওয়ে স্টেশন রয়েছে সেই সকল তথ্য সবার আগে জানার জন্য আপনি আমাদের আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন।

নাটোর জেলার ইতিহাস

নাটোরের রাজবংশের উৎপত্তি হয় অষ্টাদশ শতকের শুরুর দিকে। ১৭০৬ সালে পরগনা বানগাছির জমিদার গণেশ রায় ও ভবানী চরণ চৌধুরী রাজস্ব প্রদানে ব্যর্থ হয়ে চাকরিচ্যুত হয়। তার ফলে দেওয়ান রঘুনন্দন জমিদারি তার ভাই রামজীবনের নামে বন্দোবস্ত করেন। আর এভাবেই নাটোর রাজবংশের পত্তন হয়েছিল।


রাজা রামজীবন নাটোর রাজবংশের প্রথম রাজা হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করে ১৭০৬ সালে। রামজীবন ১৭৩৪ সালে পরলোক গমন করেছিলেন। তার আগে ১৭৩০ সালে রানী ভবনের সাথে রাজা রামজীবনের দত্তকপুত্র রামকান্তের বিয়ে হয়েছিল। রাজা রামজীবনের মৃত্যুর পর রামকান্ত নাটোরের রাজা হয়েছিলেন।

তার পরবর্তী সময়ে ১৭৪৮ সালে রাজা রামকান্তের মৃত্যুর পর নবাব আলীবর্দী খাঁ রানীভাবানির উপর জমিদারি পরিচালনা করার দায়িত্ব অর্পণ করেছিলেন। রানী ভবানির রাজত্বকালে তার জমিদারি বর্তমান রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, কুষ্টিইয়া, যশোর ও রংপুর-ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ, বীরভূ্‌ মালদাহ জেলা পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল।


নাটোর জেলায় নীল বিদ্রোহ হয়েছিল ১৮৫৯ থেকে ১৮৬০ সালের দিকে। তবে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর নাটোর একক জেলা হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা হয় ১৯৮৪ সালে।

নাটোর জেলার অবস্থান ও  আয়তন

নাটোর বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের রাজশাহী বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। এ জেলার উত্তরে নওগাঁ জেলাবগুড়া জেলা, দক্ষিণে পাবনা জেলা ও কুষ্টিয়া জেলা, পূর্বে পাবনা জেলাসিরাজগঞ্জ জেলা, পশ্চিমে রাজশাহী জেলা অবস্থিত। নাটোর শহরটি পদ্মা যমুনা মিলনস্থল হতে ১০৭ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।


সারা বাংলাদেশের তুলনায় সবচাইতে কম বৃষ্টিপাত হয় নাটোরের লালপুরে। যা বাংলাদেশের সবচাইতে উষ্ণ জায়গা বলে পরিচিত। 

নাটোর জেলার আয়তন হল ১৯০৫.০৫ বর্গ কিলোমিটার।

নাটোর জেলায় অবস্থিত উপজেলা সমূহ

নাটোর জেলায় মোট  উপজেলা রয়েছে ৭ টি 
সেগুলো হলোঃ
  • নাটোর সদর উপজেলা
  • সিংড়া উপজেলা
  • গুরুদাসপুর উপজেলা
  • বড়াইগ্রাম উপজেলা
  • লালপুর উপজেলা
  • বাগাতিপাড়া উপজেলা
  • নলডাঙ্গা উপজেলা
 নাটোর জেলায় ৪ টি সংসদীয় আসন রয়েছে

নাটোর জেলায় অবস্থিত পৌরসভার সমূহ

নাটোর জেলায় পৌরসভা রয়েছে ৮ টি
সেগুলো হলোঃ
  • নাটোর পৌরসভা
  • সিংড়া পৌরসভা
  • গুরুদাসপুর পৌরসভা
  • বড়াইগ্রাম পৌরসভা
  • গোপালপুর পৌরসভা
  • বাগাতিপাড়া পৌরসভা
  • বনপাড়া পৌরসভা
  • নলডাঙ্গা পৌরসভা

নাটোর জেলায় অবস্থিত ইউনিয়ন পরিষদ সমূহ

নাটোর জেলার ৭ টি উপজেলায় মোট ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে ৫২ টি
কোন উপজেলায় কয়টি ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে তা জানানো হলো
নলডাঙ্গা উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ  রয়েছে ৫ টি
সেগুলো হলোঃ
  • বিপ্রবেলঘরিয়া ইউনিয়ন পরিষদ
  • পিপরুল ইউনিয়ন পরিষদ
  • খাজুরা ইউনিয়ন পরিষদ
  • মাধনগর ইউনিয়ন পরিষদ
  • ব্রাক্ষপুর ইউনিয়ন পরিষদ 
বাগাতিপাড়া উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ  রয়েছে ৫ টি
সেগুলো হলোঃ
  • ফাগুয়াদড়িয়াড় ইউনিয়ন পরিষদ
  • দয়ারামপুর ইউনিয়ন পরিষদ
  • বাগাতিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ
  • জামনগর ইউনিয়ন পরিষদ
  • পাকা ইউনিয়ন পরিষদ
লালপুর উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে ১০ টি
সেগুলো হলঃ
  • কদিমচিলান ইউনিয়ন পরিষদ
  • অর্জুনপুর বরমহাটি ইউনিয়ন পরিষদ
  • দুড়দুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদ
  • ওয়ালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ
  • দুয়ারিয়া ইউনিয়ন পরিষদ
  • বিলমাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ
  • আড়বাব ইউনিয়ন পরিষদ
  • চংধুপইল ইউনিয়ন পরিষদ
  • ঈশ্বরদী ইউনিয়ন পরিষদ
  • লালপুর ইউনিয়ন পরিষদ
বড়াইগ্রাম উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে ৭ টি
সেগুলো হলঃ
  • চান্দায় ইউনিয়ন পরিষদ
  • গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদ
  • মাজগাও ইউনিয়ন পরিষদ
  • নগর ইউনিয়ন পরিষদ
  • জোনাইল ইউনিয়ন পরিষদ
  • বড়াইগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ
  • জোয়াড়ী ইউনিয়ন পরিষদ
গুরুদাসপুর উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে ৬ টি
সেগুলো হলঃ
  • চাপিলা ইউনিয়ন পরিষদ
  • মশিন্দা ইউনিয়ন পরিষদ
  • ধারাবারিয়া ইউনিয়ন পরিষদ
  • খুবজিপুর ইউনিয়ন পরিষদ
  • বিয়াঘাট ইউনিয়ন পরিষদ
  • নাজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদ
সিংড়া উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে ১২ টি
সেগুলো হলঃ
  • রামানন্দ ইউনিয়ন পরিষদ
  • ছাতারদীঘি ইউনিয়ন পরিষদ
  • চৌগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ
  • তাজপুর ইউনিয়ন পরিষদ
  • শেরকোল ইউনিয়ন পরিষদ
  • লালোর ইউনিয়ন পরিষদ
  • হাতিয়ান্দহ ইউনিয়ন পরিষদ
  • চামারি ইউনিয়ন পরিষদ
  • কলম ইউনিয়ন পরিষদ
  • ইটালি ইউনিয়ন পরিষদ
  • ডাহিয়া ইউনিয়ন পরিষদ
  • সুকাশ ইউনিয়ন পরিষদ
নাটোর সদর উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে ৭ টি
সেগুলো হলঃ
  • হালসা ইউনিয়ন পরিষদ
  • কাফুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদ
  • বড় হরিশপুর ইউনিয়ন পরিষদ
  • লক্ষ্মীপুর খোলাবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ
  • দীঘপাতিয়া ইউনিয়ন পরিষদ
  • তেবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ
  • ছাতনি ইউনিয়ন পরিষদ

নাটোর জেলায় অবস্থিত রেলওয়ে স্টেশন সমূহ

বাংলাদেশের রেলওয়ে সাধারণ মানুষের যাতায়াতের জন্য সেবা দানকারী একটি সরকারি প্রতিষ্ঠান। যা সারা বাংলাদেশে সেবা প্রদান করে থাকে। তার ধারাবাহিকতায় নাটোর জেলাতেও বাংলাদেশ রেলওয়ের কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। রেলের কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য রেলওয়ে স্টেশন স্থাপন করা হয়। যাতে করে সাধারণ মানুষ রেলে চড়ে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যেতে পারে।

নাটোর জেলায় অবস্থিত রেলওয়ে স্টেশন গুলো হলোঃ
  • আব্দুলপুর জংশন রেলওয়ে স্টেশন
  • আজিমনগর রেলওয়ে স্টেশন
  • ইয়াছিনপুর রেলওয়ে স্টেশন
  • ঈশ্বরদী বাইপাস রেলওয়ে স্টেশন
  • নাটোর রেলওয়ে স্টেশন
  • নলডাঙ্গার হাট রেলওয়ে স্টেশন
  • বিরকুটশা রেলওয়ে স্টেশন
  • বাসুদেবপুর রেলওয়ে স্টেশন
  • মালঞ্চি রেলওয়ে স্টেশন
  • মাধনগর রেলওয়ে স্টেশন
  • মাঝগ্রাম জংশন রেলওয়ে স্টেশন
  • লোকমানপুর রেলওয়ে স্টেশন

নাটোর জেলার শিক্ষা বিস্তার

বর্তমান সময়ে সারা বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থা অনেকটা উন্নতির দিকে অগ্রসর হয়েছে। তার তুলনায় নাটোরের শিক্ষাব্যবস্থা ও বেশ চোখে পড়ার মত। কেননা অনেক সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে নাটোরে যেখানে বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মানুষ আসে পড়াশোনা শেখার জন্য।


নাটোরের সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে উল্লেখযোগ্য প্রতিষ্ঠান হলঃ
  • নবাব সিরাজ-উদ-দৌলা সরকারি কলেজ
  • আব্দুলপুর সরকারী কলেজ (যা লালপুর উপজেলায় অবস্থিত)
  • শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব সরকারি মহিলা কলেজ
  • বিলচলন শহীদ শামসুজ্জোহা সরকারি কলেজ
  • রাগী ভবানী সরকারি মহিলা কলেজ
  • নাটোর সিটি কলেজ
  • নাটোর মহিলা কলেজ 
তাছাড়াও নাটরে সরকারি, বেসরকারি নানার সুনামধন্য অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে যা সারা বাংলাদেশে ব্যাপক জনপ্রিয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচিত।

নাটোর জেলার অর্থনীতি

নাটোর জেলার অর্থনীতি মূলত কৃষির উপর নির্ভরশীল। নাটোর জেলার প্রায় ৯০% মানুষ কৃষি কাজের সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত। নাটোর জেলার প্রধান উৎপাদিত ফসল হলো ধান। তাছাড়াও পান, আখ, গম, রসুন, ভুট্টা ইত্যাদি উৎপাদিত হয়। নাটোরের বিলুপ্ত ফসলের মধ্যে রয়েছে বোনা আমন, আউশ আমন ও নীল।


তবে নাটোর জেলায় বেশ কয়েকটি ভারী শিল্প রয়েছে উল্লেখযোগ্য হলো ২ টি চিনিকল, প্রাণ জুসের কারখানা, ডিস্টিলারি, দত্তপাড়া বিসিক এলাকা, রাজলংকা বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র, চামড়া সংরক্ষণ ও প্রক্রিয়াকরণ এলাকা, পদ্মা অয়েল সংরক্ষণ এলাকা নাটোরে অবস্থিত। দেশের ১৬ টি চিনিকলের মধ্যে ২ টি নাটোর জেলায় অবস্থিত।

আবার নাটোর জেলায় উৎপাদিত আখ এর উপর নির্ভর করে রাজশাহী ও পাবনা জেলায় গড়ে উঠেছে আরো ২ টি চিনিকল। সমপ্রীতি সময়ে নাটোর জেলায় আপেল কুল, বাউ কুল, থাই কুল ব্যাপক হারে চাষ করা হচ্ছে।

নাটোর জেলার বিখ্যাত খাবার

নাটোর জেলার বিখ্যাত খাবারের কথা বললে প্রথমে যেটি আসবে সেটি হল নাটোরের কাঁচাগোল্লা। কাঁচাগোল্লা নাটোরের ঐতিহ্যবাহী মিষ্টি। যা সারা বাংলাদেশে ব্যাপক জনপ্রিয় একটি খাদ্য। দুধ ও চিনি ব্যবহার করে মুলতো কাঁচাগোল্লা তৈরি করা হয়। 

নাটোর জেলার ঐতিহাসিক স্থান

সময়ের সাথে সাথে অনেক ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি তৈরি হয়েছিল নাটোরের বুকে। যার প্রমান  স্বরূপ আজও সব কিছু রয়ে গেছে সেইসব স্থানে। যে নিদর্শন দেখার জন্য সারা বাংলাদেশের অনেক মানুষ এসে থাকেন নাটোরে। নাটোর জেলার ঐতিহাসিক স্থান এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলোঃ
  • নাটোর রয়্যাল প্যালেস
  • বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ বিল যেটা নাটোরে অবস্থিত তা হল চলনবিল
  • চাপিলা রাজকীয় মসজিদ
  • দয়ারামপুর প্রাসাদ
  • মারিয়া ধর্মপল্লী
  • রাণী ভবানী প্রাসাদ
  • শহীদ সাগর
  • নাটোর জেলা পার্ক/উদ্যান

নাটোর জেলার বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব

সময়ের ব্যবধানে অনেক নামিদামি মানুষের জন্ম হয়েছিল নাটোরে। যারা সারা বাংলাদেশর ইতিহাসে অনেক পরিচিত লাভ করে। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলঃ
  • এ এইচ এম কামারুজ্জামান
  • আশরাফুল ইসলাম
  • লালন শিল্পী ফরিদা পারভীন
  • লতিফুল ইসলাম শিবলী গীতিকার ও সুরকার
  • প্রান আরএফএল গ্রুপের প্রধান নির্বাহী আমজাদ খান চৌধুরী
  • অভিনেতা আবু হেনা রনি
  • সুলতানা ইয়াসমীন লায়লা
  • রানি ভবানী
  • বাংলাদেশের প্রথম জাদুঘর বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘরের প্রতিষ্ঠাতা শরৎ কুমার রায়
  • রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এর স্বপ্নদ্রষ্টা ও স্রষ্টা বাধার বখশ
  • তাছাড়া বর্তমানে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম খেলোয়াড় তাইজুল ইসলাম যার বাসা নাটোর শহরে

শেষ কথা

আজকের এই আর্টিকেলে আমরা আপনাদের জানানোর চেষ্টা করেছি নাটোর জেলার সকল তথ্য।আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনার কাছে যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে এটি অবশ্যই অন্যদের সাথে শেয়ার করুন। এ ধরনের শিক্ষনীয় বিষয় জানতে আমাদের ওয়েবসাইটের সাথেই থাকুন।আমাদের আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url