ঢাকা টু রাজশাহী বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া ২০২৪

রাজশাহী জেলা সম্পর্কে বিস্তারিত জানুনআসসালামু আলাইকুম, সুপ্রিয় পাঠক ঢাকা টু রাজশাহী বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া ২০২৪ সম্পর্কে জানুন ও ঢাকা হতে রাজশাহীর রেলপথের দূরত্ব সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে এই আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়ুন।
ঢাকা টু রাজশাহী বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া ২০২৪
কেননা ঢাকা টু রাজশাহী রুটে চলাচলকৃত সবচাইতে বিলাসবহুল ট্রেন হলো বনলতা এক্সপ্রেস। আর এই আর্টিকেলে বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেন সম্পর্কে সকল তথ্য বিস্তারিত জানানো হয়েছে। পাশাপাশি আপনি কোন কোন স্টেশন থেকে বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনে উঠতে পারবেন সেই সম্পর্কেও আলোচনা করা হয়েছে এই আর্টিকেলে।
সূচিপত্রঃ ঢাকা টু রাজশাহী বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া ২০২৪

উপস্থাপনা

সুপ্রিয় পাঠক, সরকারি যাত্রীসেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান হলো বাংলাদেশ রেলওয়ে যা সম্পূর্ণ বাংলাদেশ সরকারের মালিকানাধীন। যাত্রিসেবা দিবার লক্ষ্যে বাংলাদেশের রেলওয়ে বিভিন্ন রুটে ট্রেন পরিচালনা করে থাকে। তার ধারাবাহিকতায় ঢাকা টু রাজশাহী রুটেও তারা বেশ কয়েকটি ট্রেন পরিচালনা করে আসছে। ঢাকার টু রাজশাহী রুটে চলাচলকৃত সবচেয়ে উন্নত ও আধুনিক এবং বিরতিহীন ট্রেন হলো বনলতা এক্সপ্রেস। আর আমাদের এই আর্টিকেলে বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেন সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

ঢাকা টু রাজশাহী ট্রেনের তালিকা

সরকারি সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান হলো বাংলাদেশের রেলওয়ে। যা সম্পূর্ণ বাংলাদেশ সরকার নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। তার ধারাবাহিকতায় দেশের সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ রেল রুট হলো ঢাকা টু রাজশাহী রেল রুট। এই রুটে বর্তমান সময়ে ৫ টি ট্রেন চলাচল করে থাকে। যার মাধ্যমে প্রতিদিন কয়েক হাজার মানুষ ঢাকা থেকে রাজশাহীতে যেতে পারে। ঢাকা থেকে রাজশাহীতে যাওয়ার ট্রেনগুলো হলো,
  • ধুমকেতু এক্সপ্রেস
  • সিল্কসিটি এক্সপ্রেস
  • পদ্মা এক্সপ্রেস
  • বনলতা এক্সপ্রেস
  • মধুমতি এক্সপ্রেস
উপরের উল্লেখিত ট্রেনগুলো তাদের নির্দিষ্ট সময়ে প্রতিদিন ঢাকা থেকে রাজশাহীতে যাতায়াত করে থাকে। আপনি চাইলে ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ও বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশন থেকে রাজশাহীতে যেতে পারেন খুব সহজে।

ঢাকা হতে রাজশাহীর রেলপথের দূরত্ব

বাংলাদেশের রেলের যতগুলো রং রুট রয়েছে ঢাকা থেকে রাজশাহী তাদের মধ্যে অন্যতম একটি রুট। রেলপথে ঢাকা থেকে রাজশাহীর দূরত্ব প্রায় ৪১০ কিলোমিটার। তবে দীর্ঘতম এই রুটে আপনি ঢাকা থেকে রাজশাহীতে খুব অল্প সময়ের মধ্যে পৌঁছে যেতে পারবেন। কেননা ঢাকা থেকে রাজশাহী যাওয়ার ট্রেনের সময়সূচীর খুব বেশি পরিবর্তন হয় না।

তাই আপনি চাইলে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই ঢাকা থেকে রাজশাহীতে পৌঁছে যেতে পারেন। বর্তমান সময়ে প্রায় ৫.৩০ মিনিট সময় লাগে ঢাকা হতে রাজশাহী যেতে। তবে বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনে গেলে সময় কিছুটা কম লাগে। বনলতা এক্সপ্রেস ঢাকা থেকে রাজশাহীর সাথে বিরতিহীন ভাবে সরাসরি রেল যোগাযোগ স্থাপন করে রেখেছে।

ঢাকা টু রাজশাহী ট্রেনের সময়সূচী

বর্তমান সময়ে ঢাকা টু রাজশাহী রুটে বাংলাদেশ রেলওয়ে মোট ৫ টি রেল পরিচালনা করে থাকে। যে রেলের মাধ্যমে কয়েক হাজার মানুষ ঢাকা থেকে রাজশাহীতে যাতায়াত করতে পারে। ঢাকা থেকে কোন ট্রেন কয়টার সময় রাজশাহীর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় সে সম্পর্কে নিচে জানানো হলো,
  • পদ্মা এক্সপ্রেস
পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করে রাত ১১ টায় এবং রাজশাহীতে পৌঁছে ভোর ৪.৩০ মিনিটে। পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনের ঢাকা থেকে রাজশাহীতে যেতে সময় লাগে ৫.৩০ মিনিটের মত। প্রতি মঙ্গলবার পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনের সাপ্তাহিক ছুটির দিন।
  • ধুমকেতু এক্সপ্রেস
পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করে ভোর ৬ টায় এবং রাজশাহীতে পৌঁছায় সকাল ১১.৩০ মিনিটে। পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনের ঢাকা থেকে রাজশাহী যাওয়ার জন্য সময় লাগে মাত্র ৫.৩০ মিনিটের মত। প্রতি শনিবার ধুমকেতু এক্সপ্রেস ট্রেনের সাপ্তাহিক ছুটির দিন।
  • সিল্কসিটি এক্সপ্রেস
সিল্কসিটি এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করে দুপুর ২.৪৫ মিনিটে এবং রাজশাহীতে পৌঁছায় রাত ৮.৩০ মিনিটে। সিল্কসিটি এক্সপ্রেস ট্রেনটির ঢাকা থেকে রাজশাহীতে যেতে সময় লাগে ৫.৪৫ মিনিটের মত। প্রতি রবিবার সিল্কসিটি এক্সপ্রেস ট্রেনের সাপ্তাহিক ছুটির দিন।
  • মধুমতি এক্সপ্রেস
মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করে দুপুর ৩ টায় যা রাজশাহীতে গিয়ে পৌঁছায় রাত ৯.৩৫ মিনিটে। মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেনের ঢাকা থেকে রাজশাহীতে যেতে সময় লাগে ৬.৩৫ মিনিট। মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেনের সাপ্তাহিক ছুটির দিন বৃহস্পতিবার
  • বনলতা এক্সপ্রেস
ঢাকা থেকে রাজশাহী রুটে চলাচলকৃত ননস্টপ রেল সেবা দিয়ে থাকে বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেন। যা শুধুমাত্র ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে ছেড়ে আসার পর ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট রেলওয়ে স্টেশন ছাড়া অন্য কোন স্টেশনে দাঁড়ায় না রাজশাহী আসা পর্যন্ত। বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করে দুপুর ১.৩০ মিনিটে এবং রাজশাহীতে পৌঁছায় সন্ধ্যা ৬ টায়। বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের ঢাকা থেকে রাজশাহীতে যেতে সময় লাগে মাত্র ৪.৩০ মিনিটের মত। বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের সাপ্তাহিক ছুটির দিন শুক্রবার।

ঢাকা টু রাজশাহী ট্রেনের ভাড়া সমূহ

বাংলাদেশ সরকার দেশের সাধারণ মানুষকে সেবা দেওয়ার জন্য রেল পরিচালনা করে থাকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। তার ধারাবাহিকতায় রাজধানী ঢাকা থেকে রাজশাহী রুটে বর্তমানে সময়ে ৪ টি রেল পরিচালনা করে আসছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। কোন ট্রেনের ভাড়ার পরিমাণ কত সেই সম্পর্কে নিচে জানানো হলো,
বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা
  • শোভন চেয়ার ৩৭৫ টাকা
  • স্নিগ্ধা চেয়ার ৭২৫ টাকা
  • এসি চেয়ার ৮৬৫ টাকা
  • এসি বার্থ ১১৭৩ টাকা
পদ্মা এক্সপ্রেস, সিল্কসিটি এক্সপ্রেস ও মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা
  • শোভন চেয়ার ৩৪০ টাকা
  • স্নিগ্ধা চেয়ার ৬৫৬ টাকা
  • এসি চেয়ার ৭৮২ টাকা
  • এসি বার্থ ১০৭৩ টাকা।

ঢাকা টু রাজশাহী বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া ২০২৪

ঢাকা টু রাজশাহী রুটে চলাচলকৃত অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা সমৃদ্ধ একটি ট্রেন হলো বনলতা এক্সপ্রেস। প্রতি সপ্তাহে ৬ দিন বনলতা এক্সপ্রেস ঢাকা টু রাজশাহী রুটে যাত্রীদের সেবা প্রদান করে থাকে। তবে প্রতি শুক্রবার বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের সাপ্তাহিক ছুটির দিন। বনলতা এক্সপ্রেস ঢাকা থেকে রাজশাহী রুটে বিরতিহীন ভাবে চলাচল করে থাকে।

ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে ছাড়ার পর ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন হয়ে বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনটি সরাসরি রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে গিয়ে থামে। তবে আপনি চাইলে ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন থেকেও বনলতা ট্রেনে যাত্রা করতে পারবেন রাজশাহীর উদ্দেশ্যে। বনলতা ট্রেনটি মূলত ইন্দোনেশিয়া থেকে নিয়ে আসা হয়েছে বাংলাদেশে যাত্রীসেবা দেওয়ার জন্য।

বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা টু রাজশাহী রুটে যাত্রী সেবা দিতে শুরু করে ২০১৯ সালের ২৫ এপ্রিল থেকে। প্রতি ঘন্টায় ৯০-১০০ গতিবেগ নিয়ে চলাচল করে থাকে বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেন। বর্তমানে বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা থেকে ছাড়া হয় দুপুর ১.৩০ মিনিটে যা রাজশাহীতে গিয়ে পৌঁছায় সন্ধ্যা ৬ টায়। এবং রাজশাহী থেকে ছাড়া হয় সকাল ৭ টায় এবং তা ঢাকায় গিয়ে পৌঁছায় ১১.৩০ মিনিটে।

বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনে কোনরকমের যাত্রা বিরতি দেওয়া হয় না তার জন্য রাজশাহী রুটে চলাচলকৃত অন্যান্য ট্রেনের তুলনায় বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনে ভাড়ার পরিমাণ একটু বেশি নেওয়া হয়। বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা নিচে দেখানো হলো,
  • শোভন চেয়ার ৩৭৫ টাকা
  • স্নিগ্ধা চেয়ার ৭২৫ টাকা
  • এসি চেয়ার ৮৬৫ টাকা
  • এসি বার্থ ১১৭৩ টাকা

শেষ কথা

সুপ্রিয় পাঠক, আর.বি.আর ব্লগের এই আর্টিকেলে ঢাকা টু রাজশাহী বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া ২০২৪ সম্পর্কে ও ঢাকা হতে রাজশাহীর রেলপথের দূরত্ব কত সেই সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আর্টিকেলটি ভালো লেগে থাকলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন। যেকোনো বিষয়ের সঠিক তথ্য সবার আগে জানতে আর.বি.আর ব্লগের গুগল নিউজে ফলো দিয়ে রাখুন। আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url